ম্যারাডোনাকে অপহরণ করেছিলেন তার দুই মেয়ে!

আর্জেন্টাইন ফুটবল কিংবদন্তি ডিয়েগো ম্যারাডোনার তদন্ত এ বার অন্যদিকে মোড় নিলো। তাকে নাকি অপহরণ করা হয়েছিল। এমনই চাঞ্চল্যকর অভিযোগ তুলেছেন তার আইনজীবী মাতিয়াস মোর্লা। তার আরো দাবি মারাডোনাকে অপহরণ করেছিলেন তার দুই মেয়ে দালমা ও জিয়ানিন্না। মৃত্যুর আগে এক কোটি ৮০ লাখ ডলারের লোভে দুই মেয়ে তার বাবাকে অপহরণ করেছিলেন।

আইনজীবী মাতিয়াস মোর্লার দাবি, ‘মৃত্যুর আগে বোন লিলির কাছে থাকতেন মারাডোনা। ওই সময় তার দুই মেয়েও ডিয়েগোর কাছে চলে আসেন। তবে তার কাছে আসার অন্য উদ্দেশ্য ছিল। টাকার জন্য দুই মেয়ে রোজ ঝগড়া করতেন মারাডোনার সঙ্গে। তার ক্রেডিট কার্ড হাতিয়ে নেয়ার পর তারা মারাডোনাকে অপহরণ করে।’

গত বছর ২৫ নভেম্বর চির ঘুমে পাড়ি দেন ম্যারাডোনা। তার মৃত্যুর পর থেকে একের পর এক তথ্য উঠে আসছে। মারাডোনার সম্পত্তি ও তার মৃত্যু নিয়ে একাধিক বিতর্ক তৈরি হওয়ার পর কয়েক মাস আগে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছিল। যদিও ওই কমিটির রিপোর্টে খুশি নন মারাডোনার মেয়েরা। এমনকি দালমা তার পরলোকগত বাবার ময়নাতদন্তের রিপোর্টকেও মানতে নারাজ। নেটমাধ্যমে সেটা তুলে ধরেছেন।
সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা